1. admin@sathikkhabor.com : JbSknUo :
  2. 2015khohanctg@gmail.com : Khokan Mazumder : Khokan Mazumder
  3. baruasangita145@gmail.com : Sangita Barua : Sangita Barua
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০২:১৫ পূর্বাহ্ন

আজ ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেটযুদ্ধ কাল এশিয়া কাপ শুরু

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২২
  • ৩৫ Time View

স্পোর্টস ডেস্ক : ফুটবল বিশ্বকাপের আগে মহাদেশীয় চ্যাম্পিয়নদের নিয়ে কনফেডারেশন্স কাপ নামে একটি টুর্নামেন্ট হতো, যা পরিচিত ছিল বিশ্বকাপের পোশাকী মহড়া নামে।

২০১৬ সাল থেকে ক্রিকেট বিশ্বকাপের সেই পোশাকী মহড়ায় রূপ নিয়েছে এশিয়া কাপ। সেই বছরই বিশ্বকাপের ফরম্যাটের সঙ্গে মিল রেখে এশিয়া কাপের সংস্করণ নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নেয় এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)। তারই ধারাবাহিকতায় ২০২২ টি ২০ বিশ্বকাপ সামনে রেখে এবারের এশিয়া কাপ হচ্ছে টি ২০ সংস্করণে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে আজ পর্দা উঠছে এশিয়া কাপের ১৫তম আসরের। দুবাইয়ে উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলংকার প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান। ছয় দলের টুর্নামেন্টে ‘বি’ গ্রুপে এই দুদলের সঙ্গে রয়েছে বাংলাদেশ। ‘এ’ গ্রুপে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তানের সঙ্গী হয়েছে বাছাইপর্বের চ্যাম্পিয়ন হংকং।

মঙ্গলবার শারজায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে বাংলাদেশের এশিয়া কাপ অভিযান। আগামীকাল দুবাইয়ে টুর্নামেন্টের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচে দেখা হবে ভারত ও পাকিস্তানের। ক্রিকেটের এই ‘এল ক্লাসিকো’ নিয়ে বরাবরই উত্তেজনার পারদ থাকে তুঙ্গে। এবার উত্তেজনা আরও বাড়ছে, কারণ এক আসরেই তিনবার মুখোমুখি হতে পারে ভারত-পাকিস্তান! দ্বিতীয়বার দেখা হতে পারে সুপার ফোরে, তৃতীয়বার ফাইনালে।

প্রতিটি গ্রুপ থেকে সেরা দুটি দল উঠবে সুপার ফোরে। সেখানে প্রতিটি দল পরস্পরের মুখোমুখি হবে একবার করে। সর্বোচ্চ পয়েন্ট পাওয়া দুই দল ১১ সেপ্টেম্বর দুবাইয়ে ফাইনালে লড়বে। ১৯৮৪ সালে যাত্রা শুরু হওয়া এশিয়ান ক্রিকেট শ্রেষ্ঠত্বের আসরে এখন পর্যন্ত শিরোপা জেতার সৌভাগ্য হয়েছে শুধু তিনটি দলের। সবচেয়ে বেশি সাতবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ভারত।

এছাড়া শ্রীলংকা জিতেছে পাঁচবার, পাকিস্তান দুবার। শেষ চার আসরে তিনবার ফাইনালে খেললেও চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি বাংলাদেশ। এবার শিরোপার স্বপ্ন দেখাও বাড়াবাড়ি মনে হতে পারে। কারণ, আফগানিস্তান ও শ্রীলংকার বিপক্ষে দুই ম্যাচের একটিতে হারলেই গ্রুপপর্ব থেকে ছুটি হয়ে যেতে পারে সাকিবদের। টি ২০ সংস্করণে বাংলাদেশের বাস্তবতা সবারই জানা। শেষ ১৫ ম্যাচে জয় মাত্র দুটি!

এবারের এশিয়া কাপে বাংলাদেশই একমাত্র দল যারা খেলতে গেছে প্রধান কোচ ছাড়াই। টুর্নামেন্টের আগে টি ২০ দলের নেতৃত্বে ফেরানো হয়েছে সাকিব আল হাসানকে। সাকিবদের দিকনির্দেশনা দেবেন নতুন নিয়োগ পাওয়া ভারতীয় টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট শ্রীধরন শ্রীরাম। ফর্ম ও শক্তির বিচারে এবার শিরোপার বড় দাবিদার ভাবা হচ্ছে রোহিত শর্মার ভারত ও বাবর আজমের পাকিস্তানকে।

তবে বাস্তবতা যেমনই হোক, নিজেদের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছেন না সাকিব। বাংলাদেশ অধিনায়কের আশা এবার নতুন চ্যাম্পিয়ন পাবে এশিয়া কাপ, ‘ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা এশিয়া কাপ জিতেছে। আশা করি, এবার নতুন একটি দল চ্যাম্পিয়ন হবে।’ অতীতের ব্যর্থতা পেছনে ফেলে বাংলাদেশকে নতুন পথের দিশা দিতে পারবেন বলে আত্মবিশ্বাসী শ্রীরামও, ‘পেছনের কিছুই বয়ে আনিনি এখানে। আমি এসেছি নতুন ভাবনা নিয়ে, নতুন ধারণা নিয়ে, নতুন প্রাণশক্তি নিয়ে। আমি চাই দলকে একতাবদ্ধ করে নতুনভাবে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে। সেটা এশিয়া কাপ থেকেই।’

ফেভারিটের প্রশ্নে অবশ্য অধিকাংশ ক্রিকেটবোদ্ধার মতো শ্রীরামও এগিয়ে রাখছেন ভারতকে, ‘ভারত ফেভারিট তাদের শক্তির গভীরতার কারণে। অনেক বেশি মানসম্পন্ন ক্রিকেটার তাদের দলে। সব প্রতিপক্ষের জন্যই ভারত হবে বড় এক চ্যালেঞ্জ।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019
Design Customized By:Our IT Provider